সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:২৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁও ব্লাড ডোনেশন ক্লাবের নতুন কমিটি গঠন সভাপতি জয় সম্পাদক মুন্না দারাজগাঁও হামিদ আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে আইপজিটিভের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঠাকুরগাঁওয়ে আবাসিক হোটেল থেকে ট্রাকচালকের লাশ উদ্ধার ঠাকুরগাঁওয়ের দুইজন জাতীয় উশু চ্যাম্পিয়নশিপ এ বিজয়ী হয়েছেন ঠাকুরগাঁওয়ে জিয়াউর রহমানের ৮৭ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা বেনাপোলে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১ ঠাকুরগাঁওয়ে নারী ও শিশু মামলায় এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ইজতেমার জন্য রোববার মেট্রোরেল চলবে সারাদিন

মোসাদ্দেক-লিটনে সিরিজে সমতা আনল টাইগাররা

স্পোর্টস ডেস্ক
  • হালনাগাদ সময় : রবিবার, ৩১ জুলাই, ২০২২
  • ৭১ বার

বোলাররাই অর্ধেক কাজ করে রেখেছিলেন। বাকি দায়িত্বটা সহজেই সারলেন ব্যাটাররা। দাপুটে জয়ে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে সমতায় ফিরলো নুরুল হাসান সোহানের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল। হারারেতে আজ দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে জিম্বাবুয়েকে ১৫ বল আর ৭ উইকেট হাতে রেখে হেসেখেলেই হারিয়েছে টাইগাররা।

বাংলাদেশের জয়ের লক্ষ্য ছিল মোটে ১৩৬ রানের। ব্যাটারদের ওপর তাই এবার তেমন চাপ ছিল না। তারপরও সুবিধা করতে পারলেন না মুনিম শাহরিয়ার। আরও একবার ব্যর্থ হয়ে ফিরলেন।

লিটন দাস ওপেনিংয়ে ঝড়ো সূচনা করেন। ফলে ২৭ বলে ৩৭ রানের জুটি এসেছে। কিন্তু মুনিম ৭ বলে ৭ রান করেই বোল্ড হয়েছেন রিচার্ড এনগারাভার বলে। আগের ম্যাচে মুনিম করেছিলেন ২ রান।

সঙ্গী হারালেও লিটন খেলেছেন নিজের মতো। বাংলাদেশ দলে অন্যতম ধারাবাহিকতার প্রতীক হয়ে ওঠা এই ব্যাটার ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ টি-টোয়েন্টি ফিফটি তুলে নেন মাত্র ৩০ বলে। এগিয়ে যাচ্ছিলেন বেশ আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে।

কিন্তু শন উইলিয়ামসকে সুইপ করতে গিয়ে লিটন ভুল করে বসলেন, পড়লেন এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে। ৩৩ বলে ৬ চার আর ২ ছক্কায় গড়া লিটনের ইনিংসটি ছিল ৫৬ রানের।

এর তিন বল পর আরও একটি উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ। এবার এনামুল হক বিজয় (১৫ বলে ১৬) হন সিকান্দার রাজার শিকার। ক্রস খেলতে গিয়ে টপ এজ হয়ে ডানহাতি এই ব্যাটার ধরা পড়েন ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ারে। ৮১ রানে ৩ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

তবে এরপর আর দলকে কোনো বিপদে পড়তে দেননি নাজমুল হোসেন শান্ত আর আফিফ হোসেন। চতুর্থ উইকেটে ৪৮ বলে ৫৫ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন তারা। আফিফ ২৮ বলে ৩০ আর ২১ বলে ১৯ রানে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করা জিম্বাবুয়ের শুরুটা ছিল ভীষণ বাজে। মোসাদ্দেক হোসেনের ঘূর্ণিতে ৩১ রানে হারায় ৫ উইকেট। অবস্থাদৃষ্টে স্বাগতিকদের স্কোর শতরান হবে- এমনটা ভাবা মনে হচ্ছিল বাড়াবাড়ি! কিন্তু সিকান্দার রাজা একপ্রান্ত আগলে এমন এক ইনিংস খেললেন, তাতে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ভদ্রস্থ একটা সংগ্রহ দাঁড় করাতে পেরেছে স্বাগতিক দল। জিম্বাবুয়ে ৮ উইকেটে করেছে ১৩৫ রান।

একপ্রান্ত আগলে ৫৩ বলে সর্বোচ্চ ৬২ রান করেছেন সিকান্দার রাজা। তার সঙ্গে ৬৫ বলে ৮০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে অবদান রাখেন রায়ান বার্লও। ৩২ রান করা রায়ার্ন বার্লকে ফিরিয়ে এই জুটি ভেঙেছেন হাসান মাহমুদ। এই জুটি ভাঙলে সিকান্দার রাজাও ফিরেছেন তার পর। ৫৩ বলে ৬২ রান করা এই ব্যাটারকে বিদায় দিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান। রাজার ইনিংসে ছিল ৪টি চার ও ২টি ছয়।

ক্যারিয়ার সেরা বোলিং করা মোসাদ্দেক ২০ রানে নেন ৫ উইকেট। ম্যাচসেরাও তিনি। মোস্তাফিজুর রহমান ৩০ রানে নিয়েছেন ১টি। হাসান মাহমুদও ২৬ রানে ১টি উইকেট নিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। জার্নাল আই ২৪ |
themesba-lates1749691102