সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁও ব্লাড ডোনেশন ক্লাবের নতুন কমিটি গঠন সভাপতি জয় সম্পাদক মুন্না দারাজগাঁও হামিদ আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে আইপজিটিভের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঠাকুরগাঁওয়ে আবাসিক হোটেল থেকে ট্রাকচালকের লাশ উদ্ধার ঠাকুরগাঁওয়ের দুইজন জাতীয় উশু চ্যাম্পিয়নশিপ এ বিজয়ী হয়েছেন ঠাকুরগাঁওয়ে জিয়াউর রহমানের ৮৭ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা বেনাপোলে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১ ঠাকুরগাঁওয়ে নারী ও শিশু মামলায় এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ইজতেমার জন্য রোববার মেট্রোরেল চলবে সারাদিন

মাদকের বিরুদ্ধে কথা বলায় মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • হালনাগাদ সময় : বুধবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২২
  • ৮৫ বার

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার শিবগঞ্জ এলাকার শাহাজাহান আলী মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকায় সন্মানের সাথে তা ছেড়ে দেয়ার কথা বলায় বিভিন্ন অভিযোগ এনে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়েছে খোদ জামাইকে।

মিথ্যা অভিযোগ থেকে রেহাই পেতে আজ বুধবার বিকেলে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন চাঁদপুর জেলার শাহারাস্তি উপজেলার আহম্মদনগর গ্রামে হাবিবুর রহমান হৃদয়।

এসময় তিনি অভিযোগ করে বলেন, দুই বছর আগে প্রেমেরে সম্পর্কে জড়িয়ে পারিবারিকভাবে শাহাজাহান আলীর মেয়ের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হই। পরবর্তিতে স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করি চাঁদপুরে। তবে পারিবারিকভাবে বনিবনা না হলে শশুর বাড়িতেই স্ত্রীকে রাখি। প্রতিমাসেই সংসারের ভরন পোষণসহ আসা যাওয়া করি ভালভাবেই। এরই মধ্যে জানতে পারি শশুর একজন মাদক ব্যবসায়ী। যা এলাকায় চিহ্নিত।

আমি এ পথ থেকে শশুরকে ফিরে আসতে বলি বার বার। তিনি খারাপ পথ ছেড়ে কি করবেন সে নিয়েও আলোচনা হয়। ব্যবসার জন্য আমার টাকায় একটি পিকআপ কিনে দেই। তারপরও তিনি মাদক ব্যবসা ছাড়েননি। বার বার টাকা পায়সা আবদার করেন। কখনো কখনো টাকাও দিয়েছি। এরই মধ্যে আমার স্ত্রীর গর্ভে সন্তান আসে। সব শেষ শশুরবাড়ি থেকে আমাকে জানানো হয় স্ত্রীর গর্ভপাত হয়েছে।

আমি শুনে সবশেষ ১৪ তারিখে শশুর বাড়িতে আসি। আসার পরেই আমাকে শশুর শাশুরি বিভিন্নভাবে চাঁপ প্রয়োগ করে বড় অঙ্কের টাকা দিতে। টাকা দিকে অস্বীকার করলে আমাকে তারা মারপিট করেন সবার সামনে।

উপায় না পেয়ে ২০ সেপ্টেম্বর পালিয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করে চাঁদপুরে ফিরে যাই। পরবর্তিতে আমার সাথে একাধিকবার শশুরের কথা হয়। মামলা দিয়ে ফাঁসানোর হুমকিও দেয়। যার কল রেকর্ড রয়েছে। পরে আমার পিতা, মাতাসহ আমার বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা করেন শাহাজাহান আলী।

আমি বা আমার পরিবার ২০ সেপ্টেম্বরের পর থেকে ঠাকুরগাঁওয়ে ছিলাম না। তবুও নানা রকম মিথ্যে অভিযোগে আমার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল বিষয়টি খতিয়ে দেখে আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ থেকে মুক্তি কামনা করছি। সেই সাথে প্রকৃত দোষী ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। জার্নাল আই ২৪ |
themesba-lates1749691102