সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৫:০০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁও ব্লাড ডোনেশন ক্লাবের নতুন কমিটি গঠন সভাপতি জয় সম্পাদক মুন্না দারাজগাঁও হামিদ আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে আইপজিটিভের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঠাকুরগাঁওয়ে আবাসিক হোটেল থেকে ট্রাকচালকের লাশ উদ্ধার ঠাকুরগাঁওয়ের দুইজন জাতীয় উশু চ্যাম্পিয়নশিপ এ বিজয়ী হয়েছেন ঠাকুরগাঁওয়ে জিয়াউর রহমানের ৮৭ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা বেনাপোলে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১ ঠাকুরগাঁওয়ে নারী ও শিশু মামলায় এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ইজতেমার জন্য রোববার মেট্রোরেল চলবে সারাদিন

পীরগঞ্জে শালিস বৈঠকে মুক্তিযুদ্ধা পরিবারের উপর হামলা

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • হালনাগাদ সময় : বুধবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২২
  • ৫৭ বার

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে শালিস বৈঠকে প্রতিপক্ষরা অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে দুই নারীকে গুরুতর আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে পীরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহতরা হলেন উপজেলা খনগাঁও ইউনিয়নের চাঁদপুর এলাকার স্বর্গীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা হরিপ্রসাদ রায়ের স্ত্রী পুস্প রানী বেওয়া ও আনছারুল হকের স্ত্রী জাকিয়া শাহনাজ।

আহত জাকিয়া শাহনাজ জানান বীর মুক্তিযোদ্ধা হরিপ্রসাদ রায়ের স্ত্রী পুস্প রানী বেওয়ার উপর হামলা করছিল এসময় আমি ও আমার স্বামী পুস্প রানী কে উদ্ধার করতে গেলে হামলা কারীরা আমার ও আমার স্বামীর উপর হামলার করে।

জানা গেছে উপজেলার খনগাঁও ইউনিয়নের চাঁদপুর এলাকার স্বর্গীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা হরিপ্রসাদ রায়ের পরিবারের সদস্যদের সাথে বিমলের জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।

আহত পুস্প রানী বেওয়া জানান উক্ত বিরোধীয় সম্পত্তি নিয়ে মঙ্গলবার বিকেলে স্থানীয় ভাবে ইউপি সদস্য, দুই পক্ষের লোকজন সহ শালিস বৈঠক বসে। বৈঠকে আমরা জমির কাগজ পত্র নিয়ে গিয়েছিলাম হামলা কারী বিমল কোন কাগজ পত্র দেখাতে পারে নি। বৈঠকে চলাকালে হঠাৎ করে হিরত ও তার ছেলে শুভ,বিমল ও তার দুই ছেলে আনন্দ, সুভাষ,মনি রামের ছেলে বিপুল,মনিরাম ও কল্যান সহ দশ থেকে পনেরো জন আমাদের উপর হামলা চালিয়েছে।

শালিস বৈঠকে উপস্থিত খনগাঁও ইউনিয়নের চাঁদপুর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মজিবুল ইসলাম মজিদ হামলার বিষয়টি স্বীকার করেন। এ বিষয়টি নিয়ে বসা হয়েছিল দুই পক্ষের সাথে এক পক্ষ কাগজ দেখাতে পেরেছে আরেক পক্ষ দেখাতে পারেনি এই জন্য দুই পক্ষকেই কাগজ পত্র ঠিক করতে বলা হয়েছে তারা কাগজ পত্র নিয়ে আসলে বিষয়টি নিয়ে আবার বসা হবে।

তবে শালিস বৈঠক থেকে দুই পক্ষের লোকজন কে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়ার পর এ ঘটনায় ঘটেছে।

এ বিষয়ে হামলা কারী বিমলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তা সম্ভব হয়নি।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। জার্নাল আই ২৪ |
themesba-lates1749691102